করোনাভাইরাসের উপসর্গ ও করনীয় :

করোনাভাইরাস একটি কদম ফুলের মত দেখতে ভাইরাস , যার নামকরন করা হয়েছে  COVID-19 , বর্তমানে (SARS-CoV-2)।  ভাইরাসটি মূলত মানুষের ফুসফুসে আক্রমণ করে। এটি একটি সংক্রামক ভাইরাস যা প্রায় বিশ্বের সব দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনাভাইরাসের  উপসর্গ ও করনীয় :

করোনাভাইরাস কী?

করোনাভাইরাস একটি কদম ফুলের মত দেখতে ভাইরাস , যার নামকরন করা হয়েছে  COVID-19 , বর্তমানে (SARS-CoV-2)  ভাইরাসটি মূলত মানুষের ফুসফুসে আক্রমণ করে। এটি একটি সংক্রামক ভাইরাস যা প্রায় বিশ্বের সব দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

করোনাভাইরাস রোগের লক্ষণগুলো কী কী?

১)  ভাইরাস শরীরে ঢোকার পর লক্ষণ দেখা দিতে প্রায় ২-১৪ দিন লাগে।

2) বেশির ভাগ ক্ষেত্রে প্রথম লক্ষণ জ্বর  এবং সাথে সর্দি  থাকতে পারে।

3)  এছাড়া শুকনো কাশি , শ্বাস কষ্ট, গলা ব্যাথা ও নিউমোনিয়া হতে পারে ।

4)  অন্যান্য রোগ (ডায়াবেটিস / উচ্চ রক্তচাপ / হাঁপানি / হৃদরোগ / কিডনি রোগ / ক্যান্সার ইত্যাদি ) থাকলে অর্গান ফেইলুর হতে পারে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় কী?

1)  যেহেতু এই ভাইরাসটি নতুন তাই এর ভেকসিন বা টিকা নেই।

২) তাই লক্ষণ দেখে চিকিসা দেয়া হয় ।

প্রতিরোধে ব্যাক্তিগত সচেতনতা-

১) ঘন ঘন সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে (* অন্তত ২০ সেকেন্ড যাবত)/

২) অপরিষ্কার হাতে চোখ, নাক, মুখ স্পশ করবেন না।

৩) ইতোমধ্যে আক্রান্ত হয়েছে, এমন ব্যাক্তির থেকে দূরে থাকতে হবে।

৪) হাঁচি / কাশির সময়ে টিস্যু / কাপড় / বাহু দিয়ে মুখ ধেকে রাখুন।

৫) প্রয়োজন মত মাস্ক ব্যাবহার করুন।

৫) অসুস্থ পশু / পাখি থেকে দূরে থাকুন

৬) যেকোনো খাবার ভাল ভাবে রান্না করে খাবেন।

৭) অসুস্থ হলে অবশ্যই ঘরে থাকুন।

 ৭) বাইরে যাওয়া অ্ত্যাবশ্যাক হলে মাস্ক ব্যাবহার করবেন।

8) এ সময়ে ভ্রমনে না যাওয়া উত্তম।

১০) মারাত্মক অসুস্থ রোগীকে হাসপাতালে যেতে বলুন।

১১) রোগীকে মাস্ক ব্যবহার করতে বলুন।

১২) রোগীর নাম, বয়স, পূর্ণ ঠিকানা সংরক্ষন করুন এবং আইইডিসিআর এর করোনা কন্ট্রোল রুমে (০১৭০০-৭০৫৭৩৭) অথবা হটলাইন (01937-110011, 01937-000011, 01927-711784, 01927-711785) যোগাযোগ করুন

তথ্য সোর্স: corona.gov.bd & who.int